মোহাম্মাদ কাসীম বলেন, ২৩ ফেব্রুয়ারির স্বপ্নে আল্লাহ্‌ আমাকে বলেছেন, কিছু কাজ করতে এবং আমি ঐ কাজগুলো করছি। কিছু লোক আমাকে বলছে যে, আপনি লোকদের পথভ্রষ্ট করছেন, আল্লাহ্‌ এবং তার রসূল (সঃ) এর নাম ব্যবহার করে। কিছু লোক বলছে যে, আপনি নিজের মতো করে স্বপ্ন লিখেছেন এবং চেষ্টা করছেন লোকদের মনে করিয়ে দিতে যে আপনি ইমাম মাহদী। যখন কিছু লোক আমায় বলে যে, আমি মিথ্যাবাদী। আমি আজ ওই কথাগুলোর জবাব / উত্তর দিচ্ছি- না আমি আল্লাহ্‌ এবং তার রসূল (সঃ) এর নাম ব্যবহার করে লোকদের ভুল পথে পরিচালিত করছি, আর না আমি নিজে থেকে স্বপ্নগুলো লিখেছি, না আমি চেষ্টা করছি লোকদের মনে করিয়ে দিতে যে আমি ইমাম মাহদী। আমি কখনোই নিজেকে ইমাম মাহদী দাবি করিনা এবং মসিহ (ঈসা আঃ) ও না। আমি খুব সাধারণ একজন মানুষ এবং আমি আমার এই কাজের জন্য কারো কাছে কোনো পুরস্কারও চাইনা। মোহাম্মাদ (সঃ) আল্লাহ্‌র শেষ নবী ও রসূল এবং আল্লাহ্‌র দয়া সবার জন্য। আমি আল্লাহ্‌ এর বন্ধু হতে চাই। এই হলো সব এবং এখন এটি পরিস্কার হওয়া উচিত। স্বপ্ন আল্লাহ্‌ রব্বুল আলামিনের পক্ষ থেকে, যিনি সব কিছু সৃষ্টি করেছেন। আমি খুব চেষ্টা করেছি বর্ণনা করতে স্বপ্নগুলো, যেভাবে আমি দেখেছি। একমাত্র আল্লাহ্‌ পারেন স্বপ্ন আর বাস্তবতার মাঝে পরিবর্তন ঘটাতে। একমাত্র আমি আল্লাহ্‌ এর কাছেই সাহায্য চাই এবং আল্লাহ্‌ আমার তত্ত্বাবধায়ক। আমি কাউকে জোর করছিনা স্বপ্নগুলো বিশ্বাস করতে এবং বিশ্বাস করা আর না করার ব্যাপারে সবারই মতামত আছে। আল্লাহ্‌ এবং মোহাম্মাদ (সঃ) আমাকে বলছেন স্বপ্নগুলো প্রচার করতে এবং আমি সেই কাজ করছি। আল্লাহ্‌ আমাকে আরো বলেছিলেন, “কাসীম, কেউ যদি তোমাকে মিথ্যাবাদী ডাকে, তাহলে তাকে বল যে, তুমিও আসো এবং আমিও আসবো, তারপর আমরা দুজনেই, আল্লাহ্‌ এর কাছে মিথ্যাবাদীর উপর অভিসমপাত পেশ করবো এবং যে কেউ আল্লাহ্‌ এবং মোহাম্মাদ (সঃ) এর নাম ব্যবহার করেছে, লোকদেরকে ভূল পথে পরিচালিত করার জন্য, তাহলে সে চিরস্থায়ী জাহান্নামে থাকবে এবং আল্লাহ্‌র অভিশাপ সেই মিথ্যাবাদীর উপর। (আমিন)…”