মোহাম্মাদ কাসীম বলেন, আমার অনেক স্বপ্নের মধ্যে আমি ইসলামকে ৩টি খুব শক্তিশালী বিল্ডিংয়ের মত দেখেছি। এইগুলো দেখতে দুর্গের মত মনে হচ্ছিল। এই দুর্গগুলো ইসলামকে রক্ষা করছে। আল্লাহ্‌ আমাকে আমার স্বপ্নের মাধ্যমে এই ৩টা দুর্গ সম্পর্কে বলেছেন। আমার সত্যস্বপ্ন মতে, ১ম দুর্গ তুর্কী, ২য় দুর্গ সৌদিআরব ও ৩য় দুর্গ পাকিস্তান। ২০১৫ সালের ডিসেম্বরের স্বপ্নে আমি দেখি যে, মোহাম্মাদ (সঃ) আমাকে বলেন, ইসলামের শেষ দুর্গ হল পাকিস্তান। এটা স্পষ্ট যে, ৩য় ও শেষটা হল পাকিস্তান। ২০১৪ সালের ৪ ডিসেম্বরের স্বপ্নে আমি দেখি যে, আল্লাহ্‌ আমাকে দেখালেন ইসলামের ৩টা প্রধান দুর্গ আছে। আমি দেখলাম ৩টি দুর্গের ২টিকে দুষ্ট ইলুমিনাতি বাহিনী ধ্বংস করে ফেলেছে। তারা দেখল মুসলমানরা প্রতিরোধের সম্মুখীন না। মুসলমানরা উদ্বিগ্ন ছিল যখন দেখল যে, ১ম দুর্গ ধ্বংস হয়ে গেল কিন্তু তারা বাঁচাতে ব্যার্থ হল। এরপর মুসলমানরা প্রচণ্ডভাবে কেঁপে উঠল, যখন ২য় দুর্গটি দুষ্ট বাহিনী দ্বারা ধ্বংস হয়ে গেল, তারা বলল এতে ইসলামের বিধ্বংসী ক্ষতি হল। তারপর তারা ইসলামের ৩য় ও চূড়ান্ত দুর্গ পাকিস্তানের দিকে অগ্রসর হল। আমি আমাকে ইসলামের ৩য় ও চূড়ান্ত দুর্গে দেখতে পাই। আমি ৩টি দুর্গকে একটির পর একটি একই সারিতে দেখলাম এবং তার ২টি শত্রু ও অস্ত্র দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে। আমি খুব আতঙ্কিত ছিলাম এবং মানুষকে সচেতন করতে চেয়েছিলাম কিন্তু কেউ মনোযোগ দেয়নি, তাই তারা ২টি দুর্গকে হারিয়েছে। তারপর আমি দেখলাম শুত্রুরা ইসলামের ৩য় ও শেষ দুর্গের দিকে অগ্রসর হতে শুরু করেছে। মুসলমানরা ভীতির সাথে নিজেদেরকে লুকিয়ে রাখার জন্য দৌড়িয়ে চেষ্টা করছে। আমি তাদেরকে বলেছিলাম তোমরা লুকিয়ে থাক আর লড়াই কর তোমরা মারা যাবে। তারপর আমি ইসলাম রক্ষা করার জন্য যুদ্ধ ও মৃত্যুবরণ করার সিদ্ধান্ত নিলাম। ৩য় দুর্গে আল্লাহ্‌ মুসলমানদেরকে সাহায্য করলেন তার শক্তি দ্বারা ও শক্তিশালী ব্ল্যাক জেট ফাইটার দ্বারা। আল্লাহ্‌র সাহায্যে মুসলমানরা ইসলামের ৩য় ও শেষ দুর্গ পাকিস্তানকে সফলভাবে রক্ষা করল। আল্লাহ্‌র সাহায্যে মুসলমানরা পূর্ব থেকে সারা বিশ্বে সত্য ইসলাম প্রতিষ্ঠিত করবে, সারা পৃথিবী শান্তি ও ন্যায়বিচারে পরিপূর্ণ থাকবে দাজ্জালের আবির্ভাব পর্যন্ত। আল্লাহ্‌ ইসলামের সকল দুর্গকে রক্ষা করুন। স্বপ্ন এখানেই শেষ হয়।