মোহাম্মাদ কাসীম বলেন, আমি ফেসবুকে আমার স্বপ্ন শেয়ার করছিলাম সেই সময়। ০২/১০/২০১৫ তারিখের রাতে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে, আগামিকাল আমি আমার সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়ার অ্যাকাউন্ট মুছে দেব এবং আমি এই কাজটি একেবারের জন্য এবং সকলের জন্য পরিত্যাগ করব। তারপর রাতে মোহাম্মাদ ﷺ আমার স্বপ্নে হাজির হন। মোহাম্মাদ ﷺ বলেন, কাসীম আল্লাহ্‌র রহমত থেকে হতাশ হইও না। তিনি তোমাকে সাহায্য করছেন এবং তুমি তোমার নিয়তির খুব কাছাকাছি। কাসীম শুধু একটু অপেক্ষা করো, আল্লাহ্ তোমার সাথে আছেন। মোহাম্মাদ ﷺ এর কণ্ঠস্বর এবং উচ্চারণ অত্যন্ত দুঃখজনক ছিল। এটা ছিল এমন যেন আমি আমার সবকাজ বন্ধ করে দিলে তিনি সবকিছু হারিয়ে ফেলবেন। আমি কখনো উনাকে পূর্বে এমন চিন্তিত দেখেছিলাম না। কাসীম এবং তার সাথীরা কোন কিছুর ধার ধারেনা, যদি পৃথিবীর সমস্ত কিছু তাদের বিপরীতে চলে যায়। তারা শুধুমাত্র তাদের প্রিয় নবী মোহাম্মাদ ﷺ সম্পর্কে যত্নশীল। এবং যখন তারা শুনতে পায় যে তাদের প্রিয় নবী মোহাম্মাদ ﷺ কান্না করছেন। আল্লাহ্‌র সাহায্যের দ্বারা তারা এটার উপর অবিচল থাকতে পারেন না। তাদের হৃদয় কান্না করে এবং তারা মোহাম্মাদ ﷺ কে সাহায্য করতে দৌড়াতে চায়। তারা বিচারের দিন মোহাম্মাদ ﷺ এর সাথী হতে চায় পৃথিবীর যে কোন কিছুর বিনিময়ে। কাসীম ও তার সঙ্গীরা জানেন যে তারা বিশেষ কিছু নয়। তারা কেবল আল্লাহ্‌র বন্ধু হতে চায়। এবং তারা সমস্ত সৃষ্টির উপরে আল্লাহ্‌র রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে ভালবাসেন।